sentence-sentence structure-subject and predicate

হ্যালো ফ্রেন্ডস।আজকে জানবো বাক্য কি? Subject and predicate কি? বাক্যের মূল অংশ কি কি?

sentence

যেমন ভাবে কতকগুলি বর্ণ পাশাপাশি বসে একটি শব্দ গঠন করে ঠিক একইরকম ভাবে কতকগুলি শব্দ পাশাপাশি বসে একটি বাক্য তৈরি করে।

অর্থাৎ কতকগুলি word পাশাপাশি বসে যদি সম্পূর্ণ রুপে মনের ভাব প্রকাশ করে তখন তাকে বাক্য বলে।(কিন্তু মনের ভাব প্রকাশ না পেলে সেটি বাক্য হবে না )
উদাহরণঃ-
 Ram is a good boy. একটি বাক্য।
 Ram good a boy.কোনো বাক্য নয়।

sentence structure

গঠনঃ- subject + verb + object + other
অর্থাৎ একটা বাক্যে Sub,verb,oub থাকতেই হবে,তবেই সেটিকে একটি বাক্য / sentence হিসাবে ধরা হবে।
আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়
বাংলা বাক্যের ক্ষেত্রে=Subject + object + verb
ইংরেজির ক্ষেত্রে=Subject + verb + object হয়।


উদাহরণঃ-

structure of a sentence


Classification of sentence


এবার জেনে নিই বাক্যের শ্রেণীবিভাগ। পরে বিস্তারিত জানবো তবে এখন সংক্ষেপে একটু জেনে নুব।

 অর্থ অনুযায়ী বাক্য ৫ প্রকার যথাঃ-
1)Assertive sentence( বিবৃতিমূলক )
2)Interrogative Sentence( প্রশ্নবোধক )
3)Imperative sentence( অনুঞ্জাসুচক )
4)Optative Sentence( ইচ্ছাসুচক )
5)Exclamatory sentence( আবেগসুচক )

গঠন অনুযায়ী 3 প্রকারঃ-

1) Simple sentence ( সরলবাক্য )
2) complex sentence( জটিলবাক্য )
3) Compound sentence( যৌগিকবাক্য )

স্মরণীয় বিষয়ঃ- প্রতিটি বাক্যের দুটি করে রুপ হয়। ইতিবাচক(affermative) ও নেতিবাচক(Negative).

বাক্য সম্বন্ধে এখন এতটাই। পরে বিস্তারিত জানবো।


এবার জানি চলো Subject and predicate কি?

Subject and predicate :-

লক্ষ্য করে দেখবে, কোনো মুলত দুটি বিষয়ের উপর জোর দেওয়া হয়। কার সম্বন্ধে বলছে ( অর্থাৎ subject) এবং কি বলছে ( অর্থাৎ Predicate)

Subject:- sentence এ যে ব্যাক্তি বা বস্তু সম্বন্ধে কিছু বলা হয় তাকে Subject বলে।

Predicate:- Sentence এ Subject সম্বন্ধে যা বলা হয় তাকে predicate বলে।

উদাহরণঃ-



স্মরণীয় বিষয়ঃ-

1) subject ছাড়াও বাক্য হতে পারে।
(উদাহরণঃ- Go to school.)
2)predicate ছাড়া sentence হয় না।
(predicate এর মূল অংশ হল Verb)
3)একটি শব্দ দিয়েও একটি বাক্য/Sentence হতে পারে।
(উদাহরণঃ- Go,Come,ru ইত্যাদি)

এই ছিলো আজকের বিষয়। আশা করি বুজতে পেরেছো বুজতে না পারলে ফেসবুকে জানাতে পারো। দেখো বুজতে না পারলে জিনিসটা বোরিং লাগবে আর বোরিং লাগলে তুমি সময়ে সময়ে এসে পড়বেও না, এতে করে শিখতেও পারবে না। তাই সময় সময়ে রুটিন করে পড়ে যাও। মনে রেখো এই পৃথিবীতে অসম্ভব বলে কিছু নেই। চেষ্টা,সাফল্য আনবেই।

ভালো লাগলে প্লিজ শেয়ার করতে ভুলো না 😊😊😊
Disqus Comments